কুষ্টিয়াশহর.কম এর পক্ষ হতে আপনাকে শুভেচ্ছা। বাংলা তথ্য ভান্ডার সমৃদ্ধ করতে আমাদের এই প্রয়াস। ইতিহাস এবং ঐতিহ্যর তথ্য দিতে চাইলে ক্লিক করুন অথবা ফোন করুনঃ- ০১৯৭৮ ৩৩ ৪২ ৩৩

Select your language

স্বাধীনতার পর কুষ্টিয়া পুলিশ লাইনে মঞ্চে উপবিষ্ট জন এ কেনেডী এবং পাশে বক্তৃতা দিচ্ছেন কামরুজ্জামান।
স্বাধীনতার পর কুষ্টিয়া পুলিশ লাইনে মঞ্চে উপবিষ্ট জন এ কেনেডী এবং পাশে বক্তৃতা দিচ্ছেন কামরুজ্জামান।

মহম্মদ আলী রেজা ১৯৩০ সালের ৭ ই ডিসেম্বর কুষ্টিয়া জেলার সুলতানপুর গ্রামে মাতুলালয়ে জন্মগ্রহন করেন এবং ১৯৮৮ সালের ১২ ই মার্চ তিনি মৃত্যুবরন করেন। তার পিতা মরহুম জহুর আলী আহাম্মদ, গ্রাম লাহিনী, জেলা কুষ্টিয়া।

ছোটকালে বাবার বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে লেখাপড়া আরম্ভ করেন। কিন্তু অসুবিধার কারনে ক্লাস সেভেন থেকে খুলনা জেলা স্কুলে হোস্টেলে থেকে ১৯৪৮ সালে ম্যাট্রিক পরীক্ষায় ঢাকা ও কলকাতা বোর্ড থেকে একই সময় প্রথম বিভাগে ম্যাট্রিক পাশ করেন। বাগেরহাট পিসি কলেজ থেকে আই,এ পাশ করেন। সেন্ট গ্রেগরী কলেজ থেকে বি,এ পাশ করার পর পাকিস্তানের লাহোর [পাঞ্জাব] বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম,এ অত্যন্ত কৃতিত্বের সাথে প্রথম বিভাগে প্রথম স্থান অধিকার করে এম,এ পাশ করেন। পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক হিসাবে যোগ দেন এবং এম,ফিল সম্পন্ন করেন।

লাহোর বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নকালে তিনি লাহোর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভি,পি নির্বাচিত হন। উক্ত সময় তিনি দরিদ্র জনগনের অবস্থার পরিবর্তনকল্পে এস,সি,আই [সার্ভিস সিভিল ইন্টারন্যাশনাল] নামে একটি সমাজ সেবামূলক সংগঠন করেন এবং উক্ত সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নির্বাচিত হন। উক্ত সংগঠনের মাধ্যমে দেশ বিদেশের বহু সমাজ কর্মী তদানিন্তন পুর্ব পাকিস্তানে অনেক সেবা মূলক কাজ করেন।

পরবর্তীতে তিনি ইংল্যান্ডের হারবার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এম,এস ডিগ্রী লাভ করেন এবং পরবর্তীতে ন্যাশনাল ইনষ্টিটিউট পাবলিক এ্যাডমিনিষ্ট্রেশন [নি,পা] এর চাকুরী গ্রহন করে পুর্ব পাকিস্তানের নি,পা এর চীফ ইন্সট্রাকটর হিসাবে কার্যরত ছিলেন।

উক্ত সময় তাকে ঐতিহাসিক আগরতলা মামলায় অভিযুক্ত করে গ্রেফতার করা হয় এবং অমানুষিক নির্যাতনের মাধ্যমেও তার নিকট থেকে কোন প্রকার স্বীকারোক্তী গ্রহন করতে পারে নাই। ঐতিহাসিক আগরতলা মামলায় সংযুক্ত হওয়ার জন্য বিদেশের বড় বড় রাজনীতিবীদদের সাথে যোগাযোগ ও আলাপ করার জন্য তাকে যেতে হয়। আইয়ুব সরকার গনআন্দোলনের কারনে আগরতলা মামলার বিচার সম্পন্ন করতে না পারায় উক্ত মামলা থেকে সকল আসামীদের মুক্তি দিতে বাধ্য হয়।

কিন্তু পরবর্তীতে তিনি আর কোন সরকারী চাকুরী করেন নাই। ব্যবসা করতে থাকেন এবং ব্যবসার কাজে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় আসার পথে তিনি রেলগাড়ীর প্রথম শ্রেনীর কামরায় আকস্মিক ভাবে মৃত্যু বরন করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৫৬ বছর। তিনি কুষ্টিয়ার একজন কৃতি সন্তান ও বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা হিসাবে বৃহত্তর কুষ্টয়া জেলা হতে মরণোত্তর সম্মানে ভুষিত হন। আলী রেজার ভাই আলী নেওয়াজ ও আলী আফিজ আগরতলা মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন।

Add comment

কুষ্টিয়া সম্পর্কিত তথ্য

সর্বশেষ পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

তথ্য সম্পর্কে খবর

আমাদের নিউজলেটার সাবস্ক্রাইব করুন এবং আপডেট থাকুন
আমরা কুকিজ ব্যবহার করি
আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে কুকিজ ব্যবহার করি। তাদের মধ্যে কিছু সাইট পরিচালনার জন্য অপরিহার্য, অন্যরা আমাদের এই সাইট এবং ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা উন্নত করতে সাহায্য করে (কুকিজ ট্র্যাক করা)। আপনি কুকিজকে অনুমতি দিতে চান কিনা তা আপনি নিজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। দয়া করে মনে রাখবেন যে আপনি যদি সেগুলি প্রত্যাখ্যান করেন তবে আপনি সাইটের সমস্ত কার্যকারিতা ব্যবহার করতে পারবেন না।