আপনাকে এবং আপনার পরিবারকে জানাই ঈদ উল আযহার শুভেচ্ছা। বাংলা তথ্য ভান্ডার সমৃদ্ধ করতে আমাদের এই প্রয়াস। ইতিহাস এবং ঐতিহ্যর তথ্য দিতে চাইলে ক্লিক করুন অথবা ফোন করুনঃ- ০১৯৭৮ ৩৩ ৪২ ৩৩

Select your language

ফকির লালন শাইজির ১২৫তম তিরোধান দিবস
ফকির লালন শাইজির ১২৫তম তিরোধান দিবস

125th Departure Day Of Fakir Lalon Shah

ফকির লালন শাইজি শিষ্যদের বললেন, আমি চললাম। লালন চাঁদর মুড়ি দিয়ে বিশ্রাম নিলেন, শিষ্যরা মেঝেতে বসে থাকলেন। এক সময় লালন কপালের চাঁদর সরিয়ে বললেন, তোমাদের আমি শেষ গান শোনাব।

পার করো হে দয়াল চাঁদ আমারে
ক্ষম হে অপরাধ আমার
এ ভব-কারাগারে।।

পাপী অধম জীব হে তোমার
তুমি যদি না করো পার দয়া প্রকাশ করে।
পতিতপাবন পতিতনাশন
বলবে কে আজ তোমারে।।

না হইলে তোমার কৃপা
সাধন সিদ্ধি কোথা বা কে করতে পারে।
আমি পাপী তাইতে ডাকি
ভক্তি দাও মোর অন্তরে।।

জলে স্থলে সর্ব জায়গায়
তোমারই সব কীর্তিময় ত্রিবিধ সংসারে।
তাই না বুঝে অবোধ লালন
প’লো বিষম ঘোরতরে।।

গান শেষ হলো, চাঁদর মুড়ি দিয়ে চিরদিনের জন্য নীরব হয়ে গেলেন ফকির লালন। ফকির লালনের জন্ম সাল জানা যায়নি, তিনি ১লা কার্ত্তিক ১২৯৭ বঙ্গাব্দ মোতাবেক ১৭ অক্টোবর ১৮৯০ খ্রিষ্টাব্দে মারা যান এবং তিনি বেঁচে ছিলেন ১১৬ বছর।

যতদূর জানা যায় ফকির লালন শাইজির এই গানটি ছিল তাঁর শেষ গান। এই গান গাওয়ার পর তিনি চির নিদ্রায় শায়িত হন। নেমে এলো ছেউড়িয়া গ্রামে শোকের মাতম। আর কি ফিরে পাওয়া যাবে তাঁকে ? তাঁকে না পাওয়া গেলেও তাঁর যে বানী এখন দিন যতো যাচ্ছে আকাশে বাতাসে তত উদয় হচ্ছে। তাঁর কোন কথায় ফেলার নয় বরং তাঁর কথা শুনলে বিবেক নাড়া দেয়।

সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী ১৬ই অক্টোবর ২০১৫ ইংরেজি, পহেলা কার্ত্তিক ১৪২২ বঙ্গাব্দ, ফকির লালন শাইজির আখড়া বাড়ীতে তাঁর তিরোধান দিবস পালিত হবে। বিশ্বের সব দেশ থেকে তাঁর ভক্তরা ছুটে আসবেন।

পাঁচদিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠান চলবে। সারা রাত তাঁর বাণী পাঠ হবে। অতিথিরা অধির মনোযোগ দিয়ে তা শ্রবণ করবে। সে এক অন্য রকম পরিবেশ নিজ চোখে না দেখলে উপলদ্ধি করা যাবে না! কুষ্টিয়াশহর.কম এর পক্ষ থেকে সবাইকে নিমন্ত্রণ রইল।

Facebook Event link: 125th Departure Day Of Fakir Lalon Shah

প্রবেশ উন্মুক্ত
স্থানঃ ফকির লালন শাইজির মাঠ, কুমারখালি, কুষ্টিয়া - ৭০০০

Add comment

ইতিহাস এর নতুন প্রবন্ধ

রমজান সম্পর্কে মজার তথ্য
রমজান সম্পর্কে মজার তথ্য

রমজান সম্পর্কে মজার তথ্য

  • Sub Title: আপনি কি জানেন রমজান মাসে দান করার সওয়াব বেশি?

সর্বশেষ পেতে সাবস্ক্রাইব করুন

তথ্য সম্পর্কে খবর

আমাদের নিউজলেটার সাবস্ক্রাইব করুন এবং আপডেট থাকুন
আমরা কুকিজ ব্যবহার করি
আমরা আমাদের ওয়েবসাইটে কুকিজ ব্যবহার করি। তাদের মধ্যে কিছু সাইট পরিচালনার জন্য অপরিহার্য, অন্যরা আমাদের এই সাইট এবং ব্যবহারকারীর অভিজ্ঞতা উন্নত করতে সাহায্য করে (কুকিজ ট্র্যাক করা)। আপনি কুকিজকে অনুমতি দিতে চান কিনা তা আপনি নিজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন। দয়া করে মনে রাখবেন যে আপনি যদি সেগুলি প্রত্যাখ্যান করেন তবে আপনি সাইটের সমস্ত কার্যকারিতা ব্যবহার করতে পারবেন না।